মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

ঈদগাহ

বান্দরবান পার্বত্য জেলায় মোট ০৩ টি ঈদগাহ রয়েছে। 

 

দক্ষিণ চট্রগ্রামের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত আয়োজনের লক্ষ্যে প্রস্তুত হচ্ছে বান্দরবানের কেন্দ্রীয় ঈদগাহ।এ লক্ষ্য গত এক সপ্তাহ ধরে চলছে মাঠ সংস্কার এবং প্যান্ডেল তৈরীর কাজ।গত কয়েক বছরের প্রাকৃতিক দূর্যোগের কথা মাথায় রেখে মাঠের বর্ধিত অংশ পাকা করা হচ্ছে এবার।
এ ব্যাপারে ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির অন্যতম সদস্য এবং বান্দরবান সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ বলেন প্রতি বছরের মত এ বছর ও ঈদ জামাত নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে ঈদগাহ পরিচালনা কমিটি ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করেছে।আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখে মাঠ প্রস্তুতে নেওয়া হচ্ছে বাড়তি ব্যাবস্থা।এবার পুরো মাঠটি ত্রিপল দিয়ে ঢেকে দেয়া হচ্ছে।এছাড়া প্যান্ডেল নির্মাণ করে বর্ণিল সাজে সাজানো হচ্ছে।এতে বৃষ্টির সময়েও মুসল্লিগণ আরামদায়ক পরিবেশে নামাজ আদায় করতে পারবেন।এ দিকে পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি গত শনিবার রাতে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দান পরিদর্শন করেন।পরে তিনি ঈদগাহ মাঠ পরিচালনা কমিটির সদস্য এবং বান্দরবানের বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।এ সময় মন্ত্রী মহোদয়কে মাঠের সার্বিক অগ্রগতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়।প্রতিমন্ত্রী জনাব বীর বাহাদুর বলেন,অতীতের সকল সময়ের তুলনায় এবার ঈদ উল আজহার নামাজ আদায়ের জন্য ঈদগাহ মাঠকে আকর্ষনীয় ভাবে সাজাতে হবে।মুসল্লিগণ যাতে আরামদায়ক পরিবেশে ঈদের নামাজ আদায় করতে পারেন এজন্য আয়োজকদের সর্ব্বোচ্চ চেষ্টা চালাতে হবে।মন্ত্রী বলেন,ঈদের আগের দিন থেকে ঈদগাহ মাঠ ও রাস্তায় ব্যাপক আলোক সজ্জ্বার ব্যবস্থা করতে হবে। কেবল ঈদগা মাঠ নয়,শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা,সড়ক ও সড়ক দ্বীপ সমূহ বর্ণিল সাজে সাজাতে হবে।ঈদের বন্ধে বান্দরবানে বেড়াতে আসা পর্যটক গণ নামাজ শেষে যেন বান্দরবানের সৌন্দর্যে মুগ্ধ হোন এ বিষয়টির প্রতি নজর রাখতে হবে।মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক জনাব দিলীপ কুমার বণিক,সদর জোন কমান্ডার লেঃকর্ণেল মশিউর রহমান জুয়েল,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কামরুজ্জামান,সদর উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব আব্দুল কুদ্দুছ,পৌর মেয়র ইসলাম বেবী,জেলা পরিষদের সদস্য জনাব মোজাম্মেল হক বাহাদুর ও জনাব লক্ষীপদ দাশ,প্রেস ক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু,আইম্মা উলামা পরিষদ সভাপতি মাওলানা ক্বারী নুরুল আমিনসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন।মন্ত্রী পরে ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দের কাছে ত্রিশটি স্ট্যান্ড ফ্যান প্রদান করেন।কেন্দ্রীয় ঈদগাহে জামাত আয়োজনের সাথে সংশ্লিষ্টরা মনে করেন দক্ষিণ চট্রগ্রামে এবার বৃহত্তম ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে বান্দরবানে।উল্লেখ্য বান্দরবানে এবার পবিত্র ঈদ উল আজহার নামাজ সকাল সাড়ে সাতটায় অনুষ্ঠিত হবে।দ্বিতীয় নামাজ বাজার জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে সকাল আট ঘটিকায়।

ছবি


সংযুক্তি