মেনু নির্বাচন করুন

=*** অপরুপা বান্দরবান ***=

ডাউনলোড ব্র্যান্ড বুক

ছবিতে জেলা ব্র্যান্ডিং


বিস্তারিত


জেলা প্রশাসনের পটভূমি

বান্দারবান জেলার নামকরণের ইতিহাস

বান্দরবান জেলার নামকরণ নিয়ে একটি কিংবদন্তি রয়েছে। এলাকার বাসিন্দাদের প্রচলিত রূপ কথায়  আছে অত্র এলাকায়  একসময় বাস করত অসংখ্য বানর । আর এই বানরগুলো  শহরের প্রবেশ মুখে  ছড়ার  পাড়ে পাহাড়ে প্রতিনিয়ত লবণ  খেতে আসত। এক সময় অনবরত বৃষ্টির কারণে ছড়ার পানি বৃ্দ্ধি পাওয়ায় বানরের দল ছড়া পাড় হয়ে পাহাড়ে যেতে না পারায়  একে অপরকে ধরে ধরে সারিবদ্ধভাবে ছড়া পাড় হয়। বানরের ছড়া পারাপারের এই দৃশ্য দেখতে পায় এই জনপদের মানুষ।  এই সময় থেকে এই জায়গাটির পরিচিতি লাভ করে "ম্যাঅকছি ছড়া " হিসাবে । অর্থ্যাৎ মার্মা ভাষায় ম্যাঅক অর্থ  বানর  আর ছিঃ অর্থ বাঁধ । কালের প্রবাহে বাংলা ভাষাভাষির সাধারণ উচ্চারণে এই এলাকার নাম রুপ লাভ করে বান্দরবান হিসাবে ।  বর্তমানে সরকারি দলিল পত্রে বান্দরবান হিসাবে এই জেলার নাম স্থায়ী রুপ লাভ করেছে। তবে মার্মা ভাষায় বান্দরবানের প্রকৃত নাম "রদ ক্যওচি ম্রো"।

জেলা রূপে আবির্ভাব

বৃটিশ শাসন আমলে ১৮৬০ সালে পার্বত্য চট্টগ্রামকে জেলা ঘোষণা করা হয়। তৎকালীন সময়ে বান্দরবান পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলার অধীন ছিলো। ক্যাপ্টেন মাগ্রেথ ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলার প্রথম সুপারিনট্যানডেন্ট। ১৮৬৭ সালে পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলার সুপারিনট্যানডেন্ট পদটির কার্যক্রম আরও বিস্তৃত করা হয় এবং ১৮৬৭ সালে এই পদটির নামকরণ করা হয় ডেপুটি কমিশনার। পার্বত্য চট্ট্রগাম জেলার প্রথাম ডেপুটি কমিশনার ছিলেন টি, এইচ লুইন। ১৯০০ সালের পার্বত্য চট্টগ্রাম রেগুলেশন অনুসারে পার্বত্য চট্টগ্রামকে তিনটি সার্কেলে বিভক্ত করা হয়-চাকমা সার্কেল, মং সার্কেল, এবং বোমাং সার্কেল। প্রত্যেক সার্কেলের জন্য একজন সার্কেল চীফ নিযুক্ত ছিলেন। বান্দরবান তৎকালীন সময়ে বোমাং সার্কেলের অর্ন্তভুক্ত ছিলো। বোমাং সার্কেলের অন্তর্ভূক্ত হওয়ার কারণে এই জেলার আদি নাম বোমাং থং।

 
বান্দরবান জেলা ১৯৫১ সালে মহকুমা হিসেবে প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু করে। এটি রাংগামাটি জেলার প্রশাসনিক ইউনিট ছিলো। পরর্বতীতে ১৯৮১ সালের ১৮ই এপ্রিল, তৎকালিন লামা মহকুমার ভৌগলিক ও প্রশাসনিক সীমানাসহ সাতটি উপজেলার সমন্বয়ে বান্দরবান পার্বত্য জেলা হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে।


জেলা ব্র্যান্ডিং এর কর্মপরিকল্পনা


কর্ম-পরিকল্পনাঃ

ইতোমধ্যে বান্দরবান পার্বত্য জেলায় জেলা-ব্র্যান্ডিংয়ের উদ্যোগ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি বিভিন্ন কর্ম-পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি পর্যটনের মধ্য দিয়ে জেলার ঐতিহ্য তুলে ধরতে বিভিন্ন মেয়াদে আরও উদ্যোগ নেয়ার ব্যাপারে পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।

বান্দরবান পার্বত্য জেলার সকল পর্যটনের আধুনিক সুবিধাদি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বেসরকারি বিনিয়োগকারীদের সাথে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব প্রকল্প চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। উল্লেখযোগ্য গৃহীত পরিকল্পনার মধ্যে আরো রয়েছে-

 

কর্ম-পরিকল্পনা ছক (পর্যটন-ব্র্যান্ডিং) 03 বছর মেয়াদী

ক্রমিক নং

কার্যক্রম

 

সময়সীমা

01.

জেলা-ব্র্যান্ডিং সংক্রান্ত ওয়েবপেইজ তৈরি করে জেলা তথ্য বাতায়নে অন্তর্ভূক্তি

চলমান

02.

ট্যুরিস্ট গাইড তৈরি ও প্রশিক্ষণ

প্রথম দলের প্রশিক্ষণ সমাপ্ত হয়েছে, ২য় দলের প্রশিক্ষণ চলমান রয়েছে।

03.

টুরিস্ট ডিরেক্টরি তৈরি

চলমান

04.

নারী উদ্যোক্তা ও নারী কর্মসংস্থান সৃষ্টি

চলমান

05.

সোশ্যাল মিডিয়া-যেমন: ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটারে প্রচারণার ব্যবস্থা করা

চলমান

06.

স্থানীয় সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের মাধ্যমে প্রচারণা (বিশেষ করে অটো রিক্সা, মাইক্রোবাস ও অন্যান্য পরিবহন)

চলমান

07.

স্থানীয় পত্রিকা, স্থানীয় ক্যাবল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ব্র্যান্ডিংয়ের প্রচার

চলমান

08.

পর্যটন কেন্দ্রসমূহের যথাযথ এবং যৌক্তিক সংস্কার

চলমান

09.

পর্যটন কেন্দ্রসমূহে আধুনিক টয়লেট ব্যবস্থা নিশ্চিত করার ব্যবস্থা

চলমান

10.

গুরু্ত্বপূর্ণ স্থানসমূহে ডাস্টবিন স্থাপন

চলমান

11.

পর্যাপ্ত সংখ্যক আনসার ও নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন

চলমান

12.

পর্যটন কেন্দ্রের অভ্যন্তরে দৃশ্যমান স্থানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও ট্যুরিস্ট পুলিশের ফোন নাম্বার সম্বলিত ফলক স্থাপন

চলমান

13.

উল্লেখযোগ্য পর্যটন কেন্দ্রসমূহে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণের জন্য অন্তত 1টি করে ফিল্টার স্থাপন

চলমান

14.

বিভিন্ন লিফলেট ও সুভ্যেনির তৈরি এবং বিতরণ

সমাপ্ত

15.

জেলা-ব্র্যান্ডিং সংক্রান্ত ব্র্যান্ডবুক প্রণয়ন ও জেলা-ব্র্যান্ডিং মেলার আয়োজন

সমাপ্ত

16.

বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে ব্যানার ও বিলবোর্ড  স্থাপন

সমাপ্ত

17.

পর্যটন কেন্দ্র সমূহের সংযোগ সড়কের অস্থায়ী স্থাপনা উচ্ছেদ ও রাস্তা প্রশস্তকরণ

চলমান

18.

পর্যটকদের প্রাথমিক চিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা

চলমান

19.

জেলার বিভিন্ন অনুষ্ঠান জেলা ব্র্যান্ডের আবহে সাজানো

চলমান

20.

ব্র্যান্ডিং নিয়ে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও প্রতিযোগিতার আয়োজন

চলমান

21.

পর্যটকদের জন্য বান্দরবান বাজার ও মেঘলায় ডাচ বাংলা ব্যাংকের 02টি এটিএম বুথ স্থাপন

প্রক্রিয়াধীন

22.

কর্মশালার আয়োজন

০২টি

http://bandarban.gov.bd/site/page/98633e18-1b62-47f7-9d4b-cc05fcaa1b5e

 

 

 




Share with :